৭ই জুলাই, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ |
শিরোনাম :
গোপালগঞ্জের নিজড়ার ইউপি চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের আমলনামা বিশ্ব শান্তির বিরল মূহুর্ত এবং একটি জন্ম “শহীদ জিয়া বাংলাদেশ স্বাধীনতার প্রতীক”-জাহিদ এফ সরদার সাদী কমলাপুর স্টেশন ভাঙার অনুমোদন দিলো প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ভূঞাপুরে চার ভোটারের কব্জি ও আঙুল কেটে ফেলল প্রতিপক্ষ সরকার শীতার্তদের জন্য কিছুই করেনি : রিজভী লক্ষ্মীপুরে ভোটকেন্দ্রের সামনে গোলাগুলি, আহত ১২ “মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যান্টনি ব্লিংকেনের সঙ্গে জাহিদ এফ সরদার সাদী’র সৌজন্য সাক্ষাৎ” ধর্মীয় সংগঠনের সঙ্গে ছাত্র ইউনিয়নের আঁতাত, ৩ নেতার পদত্যাগ নুসরাত হত্যার নির্দেশদাতার দায় স্বীকার অধ্যক্ষ সিরাজের

নির্বাচিত প্রার্থীদের শপথ বিষয়ে সতর্ক করলো বিএনপি

dailybanglatimes.com

বিডি অনলাইন রিপোর্ট : দেশে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও কর্মপন্থা নির্ধারণ করতে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নির্বাচিত প্রার্থীরা যেন শপথ না নেয় , সে ব্যাপারে সতর্ক করলো বিএনপি । ২৭ এপ্রিল, রোববার রাতে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপার্সনের কার্যালয়ে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় ।

বিএনপির দলীয় সূত্রে জানা যায় , জাহিদুর রহমানের পথ ধরে নির্বাচিত অন্যরা যাতে শপথ না নেয়। ২৭ এপ্রিল, রোববার সন্ধ্যার পর নির্বাচিতদের মধ্যে তিনজনকে নিয়ে গুলশান কার্যালয়ে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির নেতারা । বৈঠকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ- ২ আসনের আমিনুল ইসলাম , চাঁপাইনবাবগঞ্জ- ৩ আসনের হারুন উর রশিদ এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া- ২ আসনের উকিল আবদুস সাত্তার উপস্থিত ছিলেন ।

স্থায়ী কমিটির নেতাদের মধ্যে ছিলেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর , ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন , ব্যারিষ্টার জমির উদ্দিন সরকার , নজরুল ইসলাম খান , গয়েশ্বর চন্দ্র রায় , ড. মঈন খান ও আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ।

জানা গেছে, নির্বাচিতদের বিএনপির নেতারা বুঝানোর চেষ্টা করেছেন , কেন তাদের শপথ নেয়া উচিত হবে না।

এদিকে বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত এমপি জাহিদুর রহমান শপথ নেয়ার পর বলেছিলেন , ‘ অন্যরাও শপথ নিতে পারেন । তারা শপথ নিলে একসাথে সংসদ অধিবেশনে যোগ দেবেন । ’ বাকীদের সাথে কোন যোগাযোগ হয়েছে কি- না রোববার তাকে এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন , না , শপথ নেয়ার পর আমি মোবাইল বন্ধ রেখেছি , কারো সাথে যোগাযোগ হয়নি ।

তিনি বলেন , বহিষ্কার করা হলেও আমি বিএনপিতেই আছি । আজীবন এই দলেই থাকবো ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অভাবনীয় ফল বিপর্যয়ের কারনে শুরু থেকে বিএনপি ফল প্রত্যাখ্যান করে পূননির্বাচনের দাবী জানিয়ে আসছে । পাশাপাশি নির্বাচিতদের শপথ না নেয়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয় তারা । এরপরেও নির্বাচিত ৬ সদস্যের মধ্যে মহাসচিব ছাড়া বাকী ৫ জন শপথ নেয়ার আগ্রহের কথা নানা ফোরামে জানানোয় বিপাকে পরে বিএনপি।

গত বৃহস্পতিবার দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে জাহিদুর রহমান শপথ নেয়ার একদিন পরেই তাকে বহিষ্কার করে অবস্থান স্পষ্ট করে বিএনপি ।অন্যদের বেলায়ও একই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানা গেছে।

তবে বিএনপির হাইকমান্ড নির্বাচিতদের শপথ নেয়া থেকে বিরত রাখতে সব ধরনের চেষ্টা করছে । গতরাতে এক নেতা বলেন , তাদের আশা আর কেউ শপথ নেবেন না ।

আরও পড়ুন